প্রাক্তন পাক মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ মমতা – রাহুল গান্ধীর : মোদি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির পক্ষে শুভেচ্ছা বার্তা

প্রাক্তন পাক মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ মমতা – রাহুল গান্ধীর। সম্প্রতি এক সংবাদ সংস্থার মাধ্যমে প্রকাশিত হয়েছে প্রাক্তন মন্ত্রীর শুভেচ্ছা বার্তা যা তিনি দিয়েছেন মোদি বিরোধী ভারতীয় সমস্ত রাজনৈতিক দলগুলির পক্ষে। এই ঘটনাই বেশ জল হতে শুরু করেছে ভারত পাকিস্তান কূটনৈতিক অবস্থান সম্পর্কে। কি বার্তা জানিয়েছে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী চলুন দেখে নেব।

যে বা যাঁরা নরেন্দ্র মোদীকে, ভারতের মৌলবাদীদের হারাতে পারেন, তাঁদের যেমন রাহুল গান্ধী, অরবিন্দ কেজরিওয়াল ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে পাকিস্তানবাসীর শুভকামনা থাকা উচিত।

 

প্রাক্তন পাক মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ

ফের একবার ভারতের নির্বাচন নিয়ে প্রতিক্রিয়া দিলেন পাকিস্তানের প্রাক্তন মন্ত্রী চৌধুরী ফাওয়াদ হুসেন। দেশের বিরোধী দলগুলি পাকিস্তানকে সমর্থন করে বলে অভিযোগ করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী।

 

এক সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রধানমন্ত্রী মোদীর মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে পাকিস্তানের প্রাক্তন মন্ত্রী ফাওয়াদ হুসেন বলেন, কাশ্মীর হোক কিংবা ভারতের বাকি অংশ, মুসলিমরা মৌলবাদী আদর্শের মুখোমুখি হচ্ছে। ফলে সাধারণ নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদীর হারাটা গুরুত্বপূর্ণ। তিনি দাবি করেন, পাকিস্তানের সবাই চায় নরেন্দ্র মোদী পরাজিত হোন। তিনি দাবি করেছেন, ভারতে মৌলবাদ কমলে, দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কের উন্নতি হবে।

তিনি আরও দাবি করেছেন, পাকিস্তানে ভারতের প্রতি কোনও বিদ্বেষ নেই। কিন্তু ভারতে বিজেপি ও আরএসএস পাকিস্তানের প্রতি ঘৃণার বাতাবরণ তৈরি করেছে। সেখানে মুসলিমদের প্রতি বিদ্বেষ তৈরি করা হয়েছে। সেই জন্য নরেন্দ্র মোদী ও তার আদর্শের এই নির্বাচনে হারাট গুরুত্বপূর্ণ।

পাক মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ মমতা – রাহুল গান্ধীর

এর আগে পাকিস্তানের প্রাক্তন মন্ত্রী চৌধুরী ফাওয়াদ হুসেন রাহুল গান্ধীর প্রশংসা করেছিলেন। তিনি রাহুল গান্ধীকে ইন্দিরা গান্ধী এবং ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরুর সঙ্গে তুলনা করেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, রাহুল গান্ধী জওহরলাল নেহরুর মতো সমাজতন্ত্রী। তিনি আরও বলেছিলেন দেশভাগের ৭৫ বছর পরেও ভারত ও পাকিস্তানের সমস্যা একইরকম রয়ে গিয়েছে।

এব্যাপারে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে পাকিস্তানের প্রাক্তন মন্ত্রী বলেছেন, ভারতবাসীর রাহুল গান্ধী, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং অরবিন্দ কেজরিওয়ালের মতো নেতানেত্রীদের পাশে থাকা উচিত। যাতে তাঁরা মৌলবাদীদের পরাজিত করতে পারেন।

এক সংবাদ মাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকার প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেছিলেন, তিনি বুঝতে পারছেন না, কেন দেশের বাছাই করা নেতানেত্রীরা পাকিস্তানের সমর্থন পায়, তাঁদের সমর্থনের আওয়াজ ওঠে। এব্যাপারে তদন্তের প্রয়োজন রয়েছে বলেও জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী।

 

মোদি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির পক্ষে শুভেচ্ছা বার্তা : প্রাক্তন পাক মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ

প্রাক্তন পাক মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ মমতা - রাহুল গান্ধীর, প্রাক্তন পাক মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ মমতা - রাহুল গান্ধীরপ্রাক্তন পাক মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ মমতা - রাহুল গান্ধীর প্রাক্তন পাক মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ মমতা - রাহুল গান্ধীর

মোদি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির পক্ষে শুভেচ্ছা বার্তা : প্রাক্তন পাক মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ

প্রাক্তন পাক মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ মমতা – রাহুল গান্ধীর, প্রাক্তন পাক মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ মমতা – রাহুল গান্ধীরপ্রাক্তন পাক মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ মমতা – রাহুল গান্ধীর প্রাক্তন পাক মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ মমতা – রাহুল গান্ধীর প্রাক্তন পাক মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ মমতা – রাহুল গান্ধীর প্রাক্তন পাক মন্ত্রীর সঙ্গে যোগাযোগ মমতা – রাহুল গান্ধীর

Leave a Comment