জলবিদ্যুৎ কি ? কিভাবে জলবিদ্যুৎ তৈরি করা হয় | কিভাবে কারেন্ট বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছায় - Kivabe.In

জলবিদ্যুৎ -  বর্তমানে কারেন্ট বা বিদ্যুৎ ছাড়া আমাদের জীবন প্রায় অচল, আজকের দিনে আমরা মোবাইল, টিভি, ইত্যাদির প্রতি এত বেশি আসক্ত হয়ে পড়েছি যে এগুলো ছাড়া এক মুহুর্ত আমরা চলতে পারিনা। আর এই সকল যন্ত্র বা প্রযুক্তি গুলি চলার জন্য আমাদের প্রয়োজন কারেন্ট বা বিদ্যুতের। করেন বা ইলেকট্রিক, বা বিদ্যুৎ অনেক ভাবে তৈরি হতে থাকে, এদের মধ্যে একটি উল্লেখ যোগ্য উৎপাদনের মাধ্যম হলো জল থেকে জলবিদ্যুৎ। আজ আমরা এখানে জলবিদ্যুৎ কি ও জলবিদ্যুৎ কিভাবে তৈরি করা হয় টা নিয়ে আলোচনা করবো। 


জলবিদ্যুৎ কি 


    জলবিদ্যুৎ ধারণাটি বিদ্যুৎ উৎপাদনের দিক থেকে নাম দেওয়া হয়েছে অর্থাৎ জলের ধারা এই কারেন্ট বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হয় বলে এই বিদ্যুৎ কে আমরা জলবিদ্যুৎ বলে থাকি। বিভিন্ন ভাবে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হয় যেমন জল দ্বারা, তাপ দ্বারা, পরমাণু বিস্ফোরণ দ্বারা ইত্যাদি।

Kivabe.in/Jolobiddut


   যখন জলকে কাজে লাগিয়ে বিশাল আকারের বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী মোটর চালিয়ে বিদ্যুৎ বা কারেন্ট তৈরি করা হয় তখন তাকে আমরা বলি জলবিদ্যুৎ। এই বিদ্যুৎ বা ইলেকট্রিক জল থেকে তৈরি হয় এই ধারণা ভুল আসলে এই বিদ্যুৎ জলের দ্বারা তৈরি করা হয়। 

   জলবিদ্যুৎ যেহেতু জল ছাড়া তৈরি হতে পারে না তাই জলবিদ্যুৎ কেন্দ্র গুলি বেশিরভাগ ক্ষেত্রে বড় বড় নদী বা পার্বত্য অঞ্চলে প্রবাহিত কোন নদীর তীরে গড়ে ওঠে। 

   জলবিদ্যুৎ অন্য সকল বিদ্যুৎ থেকে আলাদা বা এর ক্ষমতা যে কোন এমন কোন বিষয় নেই প্রত্যেকটি বিদ্যুতের ক্ষমতা মাত্রা ও তার কার্যকারিতা একই রকম সেটা কখনো জল কখনো তাপ থেকে তৈরি হলেও। এখন আমরা দেখে নেবো কিভাবে জল বিদ্যুৎ তৈরি করা হয়


কিভাবে জল বিদ্যুৎ তৈরি করা হয় 


   উপরে আমরা জেনেছি যে জলবিদ্যুৎ কি এবং জলবিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন করা বা তৈরি করতে গেলে কি কি বিষয় প্রধানত আমাদের থাকতে হবে। এবার আমরা এখানে আলোচনা করব যে কিভাবে জল বিদ্যুৎ তৈরি করা হয়

Kivabe.in/Jolobiddut



   জল বিদ্যুৎ তৈরি করতে গেলে প্রাথমিক পর্যায়ে প্রয়োজন একটি বিশাল আকার নদী যেখানে প্রায় সারা বছর জলের অভাব থাকবে না। কারণ জলবিদ্যুৎ এর প্রধান কাঁচামাল হলো জল। বিশাল আকারের জলকে জলবিদ্যুৎ তৈরীর কাজে লাগানোর জন্য বেশিরভাগ ক্ষেত্রে বাঁধ দিয়ে আটকে রাখা হয়। এর ফলে সারা বছর জলের যোগান থাকে ও প্রয়োজন মতো জল থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা সহজ হয়।

  বিশাল আকারের সঞ্চিত জলকে একটি সরু মাধ্যম দিয়ে প্রচন্ড গতিসম্পন্ন অবস্থায় বেরোনোর মত একটি রাস্তা দেওয়া হয় যা নদীর এক পাশ থেকে অন্য পাশে আসতে পারে। আর এই জায়গাতে বসানো থাকে বিশাল আকারের বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী মটর বা টারবাইন। যে স্থান দিয়ে নদীর আটকানো জল প্রচুর গতিতে অন্যপাশে প্রবাহিত হয় সেই স্থানে একটি বিশাল আকারের চাকা লাগানো থাকে।

READ MORE 



   এই চাকাতে অনেক বড় বড় প্লেট বসানো থাকে যে প্লেটে জলের গতি চাপ দিলে পুরো চাকাটি প্রবল জোরে ঘুরতে থাকে। একটি চাকার মাঝে যেমন কোন কিছু না রাখলে চাকাটি করতে পারেন ঠিক একই রকমভাবে এই টারবাইন এর চাকার মাঝে লোহার দন্ড জোড়া থাকে আর এই দণ্ডের অপর প্রান্তে কয়েক রকম ছোট ছোট গিয়ার দিয়ে এর ঘূর্ণন কে আরো শক্তিশালী করে মোটর জুড়ে দেয়া হয়।

  আপনারা কম বেশি জেনারেটর নামের একটি ইলেকট্রিক উৎপাদনকারী মেশিন বা প্রযুক্তিতে দেখেছেন। টারবাইন থেকে যে ঘূর্ণন গতি তৈরি করা হয় সেই গতির মাধ্যমে জেনারেটর এ থাকা ওই ধরনের বিশাল আকারের মোটরকে ঘোরানো হয়।

  যেকোনো ধরনের মোটর যদি প্রবল জোরে ঘটানো হয় তবে তার থেকে ইলেকট্রিক কারেন্ট সৃষ্টি হয় তাই টারবাইন এর সাহায্যে ঘোরানো ওই মটর থেকে যে ইলেকট্রিক কারেন্ট তৈরি হয় তা আমরা ব্যবহার করি আমাদের বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছে দেয়া হয়। 

  তাহলে জলবিদ্যুৎ উৎপাদনের সমস্ত প্রক্রিয়াটি দাঁড়ালো - "নদীর বিশাল আকার জলকে একটি সংকীর্ণ পথে প্রবল গতিতে অন্যপাশে যাওয়ার ব্যবস্থা করা এবং সেই সংকীর্ণ পথে এমন একটি চাকাকে বসানো যা জলের গতির সঙ্গে প্রবাল জোরে ঘুরতে সক্ষম।  আর ওই চাকাটি ঘোড়ার সাথে সাথে চাকার সঙ্গে সম্পর্কিত একটি বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী মটর প্রচণ্ড জোরে ঘুরতে থাকে। আর ওই মোটরটি ঘোরার সাথে সাথে, মোটরের সক্ষম সমান পরিমানের কারেন্ট বা বিদ্যুৎ উৎপাদিত হয়"।

   তাহলে জল বিদ্যুৎ কিভাবে উৎপন্ন হয় তা আমরা সমস্ত বিষয়টি এখানে জানলাম। এবার কোন নদীর তীরে গড়ে ওঠা জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রে উৎপন্ন হওয়া বিদ্যুৎ বা ইলেকট্রিক কিভাবে আমাদের বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছায় তা একটু সংক্ষেপে জেনে নেওয়া যাক ।


কিভাবে বিদ্যুৎ বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছায়


   কোন বিদ্যুৎ কেন্দ্রে সৃষ্টি হওয়া কারেন্ট বা ইলেকট্রিক কিভাবে আমাদের বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছায় তা একটি আকর্ষণীয় বিষয় সুতরাং এই বিষয়টি না বুঝলে বা আলোচনা না করলে সমস্ত ধরনের বিদ্যুৎ সম্পর্কে ধারণা বাকি থেকে যাবে।

   আমরা একটু আগে আলোচনা করেছি যে কিভাবে জল বিদ্যুৎ তৈরি হয় এবার জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রে তৈরি হওয়া বিদ্যুৎ একটি স্টেপ আপ ট্রান্সফরমার এর সঙ্গে যুক্ত করা হয় এই স্টেপ অফ ট্রান্সফর্মার উৎপাদিত কারেন্ট বিদ্যুৎকে অনেক ক্ষমতা সম্পন্ন ও কয়েক লক্ষ ভোল্টেজ পর্যন্ত তৈরি করে দিয়ে হাই এক্সটেনশন তারের মধ্য দিয়ে বিভিন্ন ইলেকট্রিক সেন্টারে পাঠিয়ে দেয়।

   এই বিদ্যুৎ 2 লক্ষ ভোল্টেজ পর্যন্ত হতে পারে, তার পর হাই ভোল্টেজ তারের মাধ্যমে বিভিন্ন বিদ্যুৎ সাব স্টেশন এ পৌঁছে দেওয়া হয়। বিভিন্ন বিদ্যুৎ সাব স্টেশন এ এই কারেন্ট কে প্রথমে স্টেপ ডাউন ট্রান্সফর্মার এর সাহায্যে কয়েক লক্ষ ভোল্টেজকে অনেক কমিয়ে মাত্র 11000 ভোল্টেজ এ পরিণত করা হয়।

Kivabe.in/Jolobiddut



    এই 11000 ভোল্টেজ মাত্রার বিদ্যুৎ কে আবার ইলেকট্রিক সাব স্টেশন থেকে আলাদা তারের মাধ্যমে বিভিন্ন এলাকা তে ছড়িয়ে দেয়া হয়। আমাদের ঘরে বা বাড়িতে যে সমস্ত ইলেকট্রিক থাকে তা সাধারণত দুশ কুড়ি ভোল্ট বিশিষ্ট হয়ে থাকে। সুতরাং ওই 11000 ভোল্টেজ কে আমাদের বাড়ির আশেপাশে কোথাও ছোট ট্রান্সফর্মার বসিয়ে সেখান থেকে ভোল্টেজ কমিয়ে 220 করে ব্যবহার উপযোগী করে তোলা হয়।

   তাহলে বোঝা গেল জলবিদ্যুৎ কেন্দ্র থেকে উৎপন্ন হওয়া বিদ্যুৎক প্রথমে বাড়ানো হয় তারপর সেই বিদ্যুৎ কে দুরে কোনো সাব-স্টেশনে পাঠানো হয় সেখানে আরও কমিয়ে বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে দেয়া হয় এবং সেখান থেকে ব্যবহার উপযোগী ভোল্টেজে পরিণত করে বাড়িতে বাড়িতে বিদ্যুৎ পরিষেবা দেওয়া হয়। 

   এক্ষেত্রে একটা কথা মাথায় আসতে পারে তা হলো কেন জলবিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র থেকে টারবাইনে উৎপন্ন বিদ্যুৎ কে স্টেপ আপ ট্রান্সফরমারের মাধ্যমে বাড়িয়ে কয়েক লক্ষ ভোল্টেজ এ পরিণত করে পাঠানো হয়। যেহেতু আমরা ব্যবহার করি মাত্র 220 - 250 ভোল্ট। 

   এর উত্তর অনেক সোজা কারণ উৎপন্ন হওয়া বিদ্যুৎ শুধুমাত্র বাড়িতে ব্যবহারের জন্যই উৎপাদিত হয় না বিভিন্ন রকম কাজের জন্য বিদ্যুৎ প্রয়োজন হয় যেমন কল কারখানা, রেল, বিমানবন্দর ইত্যাদি জায়গাতে। আর এইসকল জায়গাগুলিতে বিভিন্ন ভোল্টেজ পরিমাণের বিদ্যুৎ প্রয়োজন হয়। এই কারণে কেন্দ্র গুলি থেকে বেশি মাত্রায় তৈরি করে ছাড়া হয় যেন এই বিদ্যুৎ বিভিন্ন ক্ষেত্রে কাজে লাগানো সম্ভব হয় সেই কারণে।


👉👉  তাহলে আমরা এখানে শিখলাম যে জলবিদ্যুৎ কি কিভাবে জল বিদ্যুৎ তৈরি হয় আর জলবিদ্যুৎ কে কিভাবে আমরা ব্যবহার করি এছাড়াও বিভিন্ন প্রযুক্তিগত বিষয়গুলি সম্পর্কে জানতে আমাদের ওয়েবসাইটটি ফলো করতে পারেন। এছাড়াও ট্রান্সফর্মার কিভাবে কাজ করে সে সম্পর্কে অন্য একটি আর্টিকেলে বিশদভাবে বর্ণনা করা আছে তা এখান থেকে দেখে নিতে পারেন। 

READ MORE